Items filtered by date: Thursday, 08 February 2018

প্রান্তজন প্রতিবেদক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় শুনতে আদালতের এজলাসে উপস্থিত হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

    এসময় খালেদার সঙ্গে দেখা করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ ও ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদ।

    বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা পৌনে ১২টায় রাজধানীর গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’ থেকে রওয়ানা হয়ে দুপুর পৌনে ২টার দিকে বকশীবাজার কারা অধিদপ্তরের প্যারেড গ্রাউন্ডে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালত পৌঁছান তিনি।

    তার উপস্থিতিতে বিশেষ জজ-৫ এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান এখন রায় পড়া শুরু করবেন। এ মামলার অপর দুই আসামি কাজী সালিমুল হক কামাল ও শরফুদ্দিন আহমেদকে আগেই এজলাসে আনা হয়েছে।

    সাত রাস্তা মোড় এলাকায় এসে বিএনপি নেতাকর্মীদের ঘেরাওয়ের মধ্যে পড়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়ি বহর। কড়া নিরাপত্তা বলয় থাকা সত্ত্বেও আটকানো যায়নি নেতাকর্মীদের ঢল। সাত রাস্তা ফ্লাইওভারের নিচে গাড়ি বহর পৌঁছালে বাড়তে থাকে নেতাকর্মীদের ভিড়।

    কয়েক মিনিটের মধ্যে গাড়ি বহর ঘিরে ফেলেন কয়েকশ নেতাকর্মী। এতে দ্রুত এগোতে পারছে না খালেদার গাড়ি বহর। ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবীব-উন নবী খান সোহেলকে গাড়ি বহরের ঠিক সামনে দেখা গেছে। নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে দিতে আদালত পর্যন্ত এগিয়ে নিয়ে আসেন বহর। এতে প্রায় ১ ঘণ্টা দেরিতে পৌঁছান খালেদা।

    এর আগে বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) যুক্তি-তর্ক শুনানি শেষে রায়ের দিন ধার্য করেন আদালত।

    জিয়া অরফানেজ মামলায় ২৬১ কার্যদিবসে ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ, ২৮ কার্যদিবস আত্মপক্ষ সমর্থন ও ১৬ কার্যদিবস যুক্তি-তর্ক শুনানি গ্রহণ করা হয়। এসময় খালেদা জিয়ার পক্ষে পাঁচজন আইনজীবী যুক্তি-তর্ক শুনানি করেন।

    খালেদার আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুর রেজ্জাক খান খালেদা জিয়াসহ অন্য আসামির বিরুদ্ধে মামলা প্রমাণিত হয়নি দাবি করে সব আসামির খালাস দাবি করেছেন। এছাড়া ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, মিথ্যা, বানোয়াট ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যমূলকভাবে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। ন্যায় বিচার হলে এই মামলায় সাজা হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

Published in জাতীয়

বকশীবাজার থেকে: রাজধানীর বকশীবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড গ্রাউন্ড মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালতে ঢুকতে বাধা দেওয়া পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়েছেন বিএনপির আইনজীবীরা। পরে তারা সেখানেই রাস্তায় শুয়ে পড়েন, একইসঙ্গে স্লোগান দিতে থাকেন।

    বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার রায় শুনতে আদালতে প্রবেশের পর হস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ২টার দিকে আদালতের অদূরে আলিয়া মাদ্রাসার সামনে আল্লামা কাশগরি হলের সামনে এ ধস্তাধস্তি হয়।

    প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, খালেদা জিয়ার গাড়ি আদালত প্রাঙ্গণে ঢোকার পরই তার আইনজীবীরা কাশগরি হলের ফটক দিয়ে আদালতে যেতে চান। এসময় পুলিশ বাধা দিলে তারা ধস্তাধস্তিতে জড়ান। এক পর্যায়ে রাস্তায় শুয়ে পড়ে তারা সরকারের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। বলতে থাকেন, ‘আমার নেত্রী আমার মা, জেলে যেতে দেবো না’।

    খালেদা আসার আগেও কাশগরি হলের গেট দিয়ে আদালতে প্রবেশ করতে চাইলে বিএনপি ও রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের অনেককেই বাধা দেওয়া হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ‘ওপরের নির্দেশ মানা হচ্ছে’।

Published in জাতীয়

প্রান্তজন প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা’র রায় পড়া শুরু করেছেন বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

    বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টা ১১ মিনিটে বিচারক এজলাসে প্রবেশ করেন এবং রায় পড়া শুরু করেন।

    শুরুতে তিনি ৬৬২ পৃষ্ঠার রায় বলে জানান। তবে পুরোটা তিনি পড়বেন না, বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলো পড়বেন।

    এর আগে দুপুর ১টা ৫২ মিনিটে খালেদা জিয়া বকশীবাজার কারা অধিদপ্তেরর প্যারেড মাঠে বিশেষ জজ আদালত-৫ এর এজলাসে উপস্থিত হন।

    এর আগে রায় শুনতে বকশীবাজার বিশেষ আদালতে উপস্থিত হয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও ভাইস চেয়ারম্যান মেজর হাফিজ উদ্দিন এজলাসে প্রবেশ করেন।

    খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুর রেজাক খান, অ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ব্যারিস্টার আমিনুল হক, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন,  ব্যারিস্টার জিয়াউর রহমান খান, অ্যাডভোকেট  জয়নাল আবেদিন, মাহবুব উদ্দিন খোকন, শাহজাহান ওমর, নিতাই রায় চৌধুরী, সানাউল্লাহ মিয়া,  আমিনুল ইসলাম, মীর নাসির হোসেন, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মির্জা আল মাহমুদ, মহসিন মিয়া, ইকবাল হোসেন, ওমর ফারুক ফারুকী, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস উপস্থিত আছেন।

    এছাড়া দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল, আব্দুস সালাম, রফিকুল ইসলাম বেনু, অ্যাডভোকেট তৌহিদুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি আব্দুল্লাহ আবু, আব্দুল মান্নান প্রমুখ উপস্থিত আছেন।

Published in জাতীয়

প্রান্তজন প্রতিবেদক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মামলার অন্য আসামিদের ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামান এ রায় দেন। এর আগে বেলা সোয়া ২টার দিকে আদালত হাজির হন খালেদা জিয়া। এসময় তার সঙ্গে বিএনপি’র শীর্ষস্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় কুয়েত থেকে এতিমদের জন্য পাঠানো দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে করা। ২০০৮ সালের ৩ জুলাই সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে রাজধানীর রমনা থানায় মামলাটি করে দুদক। ওই বছরই ৪ জুলাই মামলাটি গ্রহণ করেন আদালত। তদন্ত শেষে দুদকের সহকারী পরিচালক হারুন-অর রশিদ ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমানসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেন।

মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান ছাড়া বাকি আসামিরা হলেন, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, সাবেক মুখ্যসচিব কামালউদ্দিন সিদ্দিকী এবং বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান। মামলার ছয় আসামির মধ্যে খালেদা জিয়া জামিনে রয়েছেন। মাগুরার সাবেক সাংসদ কাজী সালিমুল হক কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ কারাগারে আর তারেক রহমান, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান পলাতক।

যে দুই ধারায় খালেদার বিরুদ্ধে বিচারকাজ পরিচালনা হয়েছে সেগুলো হলো,দণ্ডবিধির ৪০৯ ও দুদক আইনের ৫(২) ধারা। দণ্ডবিধির ৪০৯ এ বলা আছে, ‘যে ব্যক্তি তাহার সরকারি কর্মচারীজনিত ক্ষমতার বা একজন ব্যাংকার, বণিক, আড়তদার, দালাল, অ্যাটর্নি বা প্রতিভূ হিসাবে তাহার ব্যবসায় ব্যাপদেশে যে কোনও প্রকারে কোনও সম্পত্তি বা কোনও সম্পত্তির ওপর আধিপত্যের ভারপ্রাপ্ত হইয়া সম্পত্তি সম্পর্কে অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ করেন, সেই ব্যক্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে বা দশ বৎসর পর্যন্ত কারাদণ্ডে দণ্ডিত হইবে এবং তদুপরি অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হইবে।’ দুদক আইনের ৫ (২) ধারা অনুযায়ী, ‘কোন সরকারি কর্মচারী অপরাধমূলক অসদাচরণ করিলে বা করার উদ্যোগ গ্রহণ করিলে তিনি সাত বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড অথবা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডের যোগ্য হইবেন।’

দীর্ঘ এই বিচার প্রক্রিয়ায় মামলা থেকে রেহাই পেতে খালেদা জিয়া উচ্চ আদালতে গেছেন একাধিকবার। তার অনাস্থার কারণে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তিনবার এ মামলার বিচারক বদল হয়েছে। পরে ২০১৪ সালের ২২ সেপ্টেম্বর এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। একই বছরের ৭ মে ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ আদালত থেকে এ দু’টি মামলা বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালতে স্থানান্তর করা হয়।

Published in জাতীয়

প্রান্তজন প্রতিবেদক: বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে নগর বিএনপির কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে অবস্থান নেওয়া নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে।  অবরুদ্ধ নাসিমন ভবনের সামনে পুলিশকে লক্ষ্য করে নেতাকর্মীরা ইট-পাটকেল ছুঁড়লে এই সংঘাতের সূত্রপাত হয়।

    পুলিশ নাসিমন ভবনের ভেতরে ঢুকে নগর বিএনপির সভাপতি ডা.শাহাদাৎসহ কমপক্ষে ১৫ জনকে আটক করেছে।

    বিএনপি চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে জিয়া এতিমখানা দুর্নীতির মামলায় বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার জজ আদালতে রায় ঘোষণা হবে।  রায়ের পর নাশকতার আশঙ্কায় সকাল থেকেই নাসিমন ভবন অবরুদ্ধ করে রাখে পুলিশ।

    তবে নগর বিএনপির সভাপতি ডা.শাহাদাৎ হোসেন ও সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ানসহ সিনিয়র কয়েকজন নেতা তাদের অনুসারী কর্মীদের নিয়ে নাসিমন ভবনের ভেতরে অবস্থান নেন।

    সেখানে গিয়ে দেখা গেছে, দুপুর ১টা ৩৫ মিনিটে ডা.শাহাদাৎসহ নেতারা নাসিমন ভবনের ফটকের সামনে এসে অবস্থান নেন।  এসময় মহিলা দলের এক নেত্রী এক পুলিশ সদস্যকে ধাক্কা দেয়।  তখন পুলিশ মহিলা দলের কয়েকজন নেতাকর্মীকে কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়।

    এক পর্যায়ে নেতাকর্মীরা বিভিন্ন স্থান থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকেন।  পুলিশও তাদের ধাওয়া দেয়।  এরপর পুলিশ গিয়ে ফটকের সামনে থেকে শাহাদাৎ-সুফিয়ানসহ নেতাদের কার্যালয়ের ভেতরে নিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন।

    দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটে কার্যালয়ের ভেতরে গিয়ে শাহাদাতসহ কমপক্ষে ১০ জনকে আটক করে ভ্যানে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ।  এর আগে মহিলা দলের নেত্রী আঁখি সুলতানাসহ আরও কমপক্ষে ৫ জনকে আটক করা হয়।

Published in সারাদেশ

বাগেরহাট: বাগেরহাটে বিগত ৭২ ঘণ্টায় ১৪২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে বিএনপি ও জামায়াতের ২৩ নেতাকর্মী রয়েছেন।

    এর মধ্যে বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াতের সাত নেতাকর্মীসহ ৩৮ জনকে, মঙ্গলবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) থেকে বুধবার (০৭ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত ৫০ জনকে এবং সোমবার (০৫ ফেব্রুয়ারি) থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত ৫৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

    বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় বাংলানিউজকে জানান, বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অভিযানে গ্রেফতারকৃত ৩৮ জনের মধ্যে বিএনপি ও জামায়াতের সাত নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে নাশকতা ও বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রয়েছে। বাকিরা বিভিন্ন মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি।

Published in সারাদেশ

প্রান্তজন প্রতিবেদক: বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার রায়কে কেন্দ্র করে মাঠ দখলে রাখতে গিয়ে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়েছে। এতে সুমন (৩০) নামের একজন নিহত ও অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২০ জনকে আটক করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার কাঞ্চনে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের এক পক্ষের নেতৃত্ব দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী। অন্য পক্ষের নেতৃত্ব দেন কায়েতপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রফিক। দীর্ঘ দিন যাবৎ তাদের দ্বন্দ্ব চলে আসছে। আজ বেলা ১১টার দিকে খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে কেন্দ্র কাঞ্চনে সেতুর পশ্চিমপাড়ে দু’পক্ষের হাজারো সমর্থক লাঠিসোঁটা নিয়ে অবস্থান নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিপেটা ও শটগান থেকে ফাঁকা গুলি ছুড়ে। সংঘর্ষে পাঁচ পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফারুক হোসেন জানান, দু’পক্ষের মধ্যে পূর্ব বিরোধ ছিল। ওই বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে পুলিশসহ অনেকে আহত হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক শতাধিক শটগান ও কাঁদানে গ্যাসের শেল নিক্ষেপ করেছে। আটক করা হয়েছে ২০ জনকে।

ঢাকা মেডিকেল সংবাদদাতা জানান, বেলা দেড়টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে তিনজনকে ও আরেকজন আলাদা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। চিকিৎসক পরীক্ষা নিরীক্ষা করে সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন। তাঁর বাবার নাম মনু মিয়া। তাঁর বাড়ি উপজেলার রুপসীর গোবিন্দপুর এলাকায়। আর কালাম (২৩), জয়নাল (৩২) ও শাকিল (২৪)কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আহত জয়নাল বলেন, তারা সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজীর পক্ষের লোকজন। তারা যুবলীগ করেন। এ সময় কায়েতপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের লোকজন পুলিশ নিয়ে এসে গুলি করে।

ঢাকা মেডিকেলের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা আলাউদ্দিন বলেন, পরীক্ষা নিরীক্ষা করে একজনকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছে। লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।

Published in সারাদেশ

প্রান্তজন ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার রায়কে কেন্দ্র করে যুক্তরাজ্য বিএনপির বিক্ষোভ থেকে লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাসে ভাংচুর চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবক দলের যুক্তরাজ্য সভাপতি নাসির আহমদকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

    লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে বুধবার (৭ ফেব্রুযারি) রাত ৯টার দিকে সেখানকার বিএনপি নেতাকর্মীরা স্মারকলিপি দেওয়ার নামে জোর করে হাইক‌মিশ‌নে প্রবেশ করে। এরপর তারা হাইকমিশনের কর্মীদের ওপর হামলা চালায় এবং হাইকমিশনের আসবাবপত্রসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি ভাঙচুর করে।

    লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাসে বিএনপি নেতাকর্মীদের ভাংচুরবিএনপির সভাপতি এম এ মালেক বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ ও স্মারকলিপি দিতে গিয়েছিলাম। কিন্তু হাইকমিশনের কর্ম‍‍কর্তারা তা নিতে অস্বীকার করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে কিছু মানুষ ভেতরে প্রবেশ করে শেখ হাসিনা ও বঙ্গবন্ধুর ছবি খুলে নিয়ে ভাংচুর করে।

    এদিকে দূতাবাসের একজন কম‍র্কতা‍ বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা ভাংচুর চালিয়েছে। এসময় তারা যুক্তরাজ্য হাইকমিশনের এক কম‍র্চারীকে মারধর করে।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  সিরিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের হামলায় বুধবার ১০০ সিরীয় অথবা  প্রেসিডেন্ট  বাশার আল আসাদ-সমর্থিত সেনার মৃত্যু হয়েছে।

    মার্কিন জোটের দেয়া বিবৃতির বরাত দিয়ে সিএনএন বৃহস্পতিবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) এ খবর দিয়েছে।

    যৌথ বাহিনীর দাবি, সিরীয় বাহিনীর ওপর এই হামলা ছিল ‘আত্মরক্ষামূলক’। নিহত সিরীয় সৈন্যের সংখ্যা ১০০ বা তারও বেশি হতে পারে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

    এতে আরও দাবি করা হয়, সিরীয় সরকারি বাহিনী বুধবার আসাদবিরোধী সিরিয়ান ডেমোক্রেমিক বাহিনীর সদর দপ্তরের ওপর বিনা উস্কানিতে হামলা চালায়। এসময় সেখানে মার্কিন জোটের সামরিক বিশেষজ্ঞরা কর্মরত ছিলেন। এরই জবাব দিতে প্রতিরক্ষামূলক এই বিমান হামলা চালায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের জঙ্গি বিমানগুলো।

    এর আগে ৫০০ সিরীয় সেনা কামান, মর্টার ও রাশিয়ায় নির্মিত টি-৫৪ ও টি-৭২ ট্যাংকের সাহায্যে ইউফ্রেতিস নদের ৮ কিলোমিটার পুবের খুসাম এলাকার ডি-কনফ্লিকশন জোনে অবস্থিত মার্কিন সমর্থনপুষ্ট সিরিয়ান ডেমোক্রেমিক বাহিনীর সদর দপ্তরে অতর্কিত হামলাটি চালায়।

    সিরীয় বাহিনীর হামলাকালে কোনো মার্কিন বা জোটভুক্ত দেশের কোনো সামরিক বিশেষজ্ঞ মারা যাননি। তবে আসাদবিরোধী সিরিয়ান ডেমোক্রেমিক বাহিনীর একজন সেনা আহত হয়েছে।

    সিরীয় বাহিনী এলাকাটি দখলে নিতে এসেছিল বলেই মনে করছে মার্কিন জোট। বিদ্রোহী বাহিনীর ঘাঁটি ছাড়াও এখানে সমৃদ্ধ তেলক্ষেত্রও রয়েছে যা এখন বিদ্রোহী বাহিনীর দখলে রয়েছে।

    এই তেলক্ষেত্রটি দখল করাও ছিল সিরীয় বাহিনীর আরেক উদ্দেশ্য । এই তেলক্ষেত্রটি ২০১৪ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত জঙ্গিগোষ্ঠি আইসিস-এর আয়ের মূল উৎস ছিল। পরে সিরিয়ান ডেমোক্রেমিক ফোর্স তা দখল করে নেয়।

    তবে বিমান হামলায় মারা যাওয়া ১০০ সেনা সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর নাকি আসাদ সমর্থিত গেরিলা বাহিনীর এ নিয়েও সিএনএন’র কাছে সংশয় প্রকাশ করেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মার্কিন কর্মকর্তা।

    তার মতে, নিহতদের মধ্যে আসাদের পক্ষে লড়াই করা ইরানি গেরিলারাও থাকতে পারে। তবে এ মুহূর্তে সবকিছু এখনো স্পষ্ট নয়।

ক্রীড়া প্রতিবেদক: ২০১৪ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে মাঠে নেমেছিলেন আব্দুর রাজ্জাক। চট্টগ্রামে সেই টেস্ট পাঁচ দিন পর্যন্ত গড়িয়ে ড্র হয়েছিল ৮ ফেব্রুয়ারি। কাঁটায় কাঁটায় ৪ বছর পর সেই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই জাতীয় দলের সাদা পোশাকে প্রত্যাবর্তনকে কী দারুণভাবেই না রাঙাচ্ছেন রাজ্জাক!শ্রীলঙ্কার ইনিংসে ষষ্ঠ ওভারে প্রথম বলে দিমুথ করুনারত্নেকে (৩) তুলে নেন বাঁহাতি এ স্পিনার। এরপর নিজের দ্বিতীয় স্পেলে জাগিয়ে তুলেছিলেন হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা!
সকালের সেশনে দ্বিতীয় ওভারেই রাজ্জাকের হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। নিজের তৃতীয় ওভারেই বাংলাদেশকে ভালো শুরু এনে দেন ৩৫ বছর বয়সী এ স্পিনার। দিমুথ করুনারত্নেকে (৩) স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলেন তিনি। এরপর ২৮তম ওভারে দ্বিতীয় স্পেলে রাজ্জাককে বোলিংয়ে ফেরান অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। তাঁর প্রথম বলেই মিড অফে মুশফিককে ক্যাচ দেন দানুষ্কা গুনাতিলকা (১৩)। পরের বলটি ছিল যে কোনো বাঁহাতি স্পিনারের স্বপ্নের ডেলিভারি। মাঝ স্টাম্প বরাবর নিখুঁত লেংথের ডেলিভারিটি খানিকটা বাঁক খেয়ে সাপের ছোবল মারার মতো আঘাত হেনেছে স্টাম্পে। লঙ্কান অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমাল সোজা ব্যাটে খেলেও নিজেকে রক্ষা করতে পারেননি।
রাজ্জাক হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগানোর আগে ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে (১৯) ফেরান তাইজুল ইসলাম। ৪ উইকেটে ১০৫ রান নিয়ে মধ্যাহৃ বিরতিতে যায় শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেও রাজ্জাক-তাইজুলের ছোবল থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারেননি লঙ্কানরা। একপ্রান্ত আগলে রাখা কুশল মেন্ডিসকে (৬৮) দ্বিতীয় সেশনের দ্বিতীয় বলেই ফেরান রাজ্জাক। এবারও নিখুঁত লেংথ থেকে বাঁক নিয়ে তাঁর ডেলিভারি আঘাত হেনেছে স্টাম্পে।
পরের ওভারে নিরোশান ডিকভেলাকেও (১) ফিরিয়ে শ্রীলঙ্কার দুই শ-র নিচে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা বাড়িয়ে তোলেন তাইজুল। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার স্কোর ৬ উইকেটে ১১৭। ব্যাট করছেন রোশন সিলভা (১০*) ও দিলরুয়ান পেরেরা (১*)।
সাব্বির রহমানকেও দলে ফিরিয়েছে বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট। মোসাদ্দেক হোসেনের জায়গায় খেলছেন সাব্বির। শ্রীলঙ্কা দলে টেস্ট অভিষেক ঘটেছে আকিলা ধনঞ্জয়ার। বাংলাদেশের মতো শ্রীলঙ্কাও এক পেসার নিয়ে একাদশ গড়েছে। টস হেরে ফিল্ডিং করছে বাংলাদেশ। চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম টেস্টে ড্র করেছে দুই দল।

NewsLine is a full functional magazine news for Entertainment, Sports, Food website. Here you can get the latest news from the whole world quickly.